প্রধান সূচি

তিন স্ত্রী রেখে পরকীয়া, আপত্তিকর অবস্থায় ধরা খেলো আ’লীগ নেতা

The-leader-of-the-elite-lea

ঘরে তিন তিনটি স্ত্রী। তিন সন্তানের জনকও তিনি। তবুও অন্য নারীর সঙ্গে প্রেমের সম্পর্কে মত্ত ছিলেন। অতঃপর প্রবাসীর স্ত্রীর সঙ্গে পরকীয়া করতে গিয়ে আপত্তিকর অবস্থায় জনতার হাতে আটক হয়েছেন সাইদুর রহমান শরীফ নামে এক আওয়ামী লীগ নেতা।

শুক্রবার গভীর রাতে টাঙ্গাইলে ঘাটাইলের রসুলপুরে এ ঘটনা ঘটে।একই গ্রামের লিবিয়া প্রবাসী মাহফুজুর রহমানের স্ত্রী মাহমুদা খাতুনের (২৫) ঘরে আপত্তিকর অবস্থায় দু’জনকে আটক করে এলাকাবাসী। প্রেমিক যুগলকে সারারাত আটকে রেখে শনিবার দুপুরে পুলিশে সোর্পদ করে এলাকাবাসী।

সাইদুর রহমান শরীফ উপজেলার রসুলপুর ইউনিয়নের শালিয়াবহ (পেচারআটা) গ্রামের মফেজ মেম্বারের ছেলে ও ওয়ার্ড আওয়ামী লীগের সাবেক সাধারণ সম্পাদক বলে জানা গেছে।

পুলিশ ও প্রত্যক্ষদর্শীরা জানান, উপজেলার রসুলপুর ইউনিয়নের শালিয়াবহ গ্রামের লিবিয়া প্রবাসী এক ব্যক্তির স্ত্রীর সঙ্গে পরকীয়া প্রেমের সম্পর্ক চলে আসছিল সাইদুর রহমানের।

এরই ধারাবাহিকতায় শুক্রবার রাত দেড়টার সময় শরীফ মাহমুদার ঘরে ঢুকলে টের পান প্রতিবেশীরা। এ সময় ঘর থেকে আপত্তিকর অবস্থায় দুজনকে আটক করে এলাকাবাসী। রাতভর আটক রেখে আজ শনিবার তাদের দুজনকেই পুলিশে সোপর্দ করা হয়।

স্থানীয়রা জানায়, তাদের অবৈধ সম্পর্ক ও অবাধ মেলামেশার বিষয়টি এলাকাবাসী জানলেও শরীফ প্রভাবশালী হওয়ায় কেউ কিছু বলতে সাহস পাননি। এ ঘটনায় প্রবাসী তার স্ত্রীকে তালাক দিয়েছেন। আটক শরীফের সংসারে তিন স্ত্রী ও তিন কন্যা রয়েছেন।

ঘাটাইল থানা পুলিশ উপ-পরিদর্শক মো. আনিছুর রহমান বলেন, দু’জনকে এলাকাবাসী আটক করে পুলিশকে জানায়। পরে আমরা তাদেরকে থানায় নিয়ে আসি।