প্রধান সূচি

আ.লীগের মনোনয়ন ফরম জমা দিলেন শ ম রেজাউল করিম

sm-rezaul

বাংলাদেশ আওয়ামী লীগের আইন সম্পাদক সিনিয়র অ্যাডভোকেট শ ম রেজাউল করিম আজ সোমবার (১২ নভেম্বর) সকালে পিরোজপুর-১ আসন থেকে দলীয় মনোনয়ন প্রত্যাশী হিসেবে সংগ্রহ করা মনোনয়ন ফরম আওয়ামী লীগের সভানেত্রী জননেত্রী শেখ হাসিনার ধানমন্ডি কার্যালয়ে জমা দিয়েছেন।

এ সময় পিরোজপুর-১ (সদর-নাজিরপুর-স্বরুপকাঠী) আসনের বিপুল সংখ্যক নেতাকর্মী-ভোটার ও সাধারণ জনগণ উপস্থিত ছিলেন।

সুপ্রিম কোর্টের সিনিয়র আইনজীবী শ ম রেজাউল করিম। টেলিভিশন টক শোতে পরিচিত মুখ। সমসাময়িক যে কোনো ঘটনায় টিভির পর্দায় নিয়মিত দেখা যায় তাকে। যেকোনো ইস্যুতে আওয়ামী লীগের পক্ষে যুক্তি উপস্থাপন করে যাচ্ছেন তিনি।

আইনজীবীদের মধ্যেও তিনি বেশ জনপ্রিয়। বঙ্গবন্ধু আইনজীবী পরিষদের যুগ্ম সম্পাদক ছিলেন। দেশের সর্বোচ্চ আদালত সুপ্রিম কোর্ট আইনজীবী সমিতির সম্পাদক নির্বাচিত হয়েছেন। বর্তমানে তিনি আইনজীবীদের নিয়ন্ত্রক সংস্থা বাংলাদেশ বার কাউন্সিলের নির্বাচিত সদস্য এবং বার কাউন্সিলের অর্থ কমিটির চেয়ারম্যান। এর আগেও তিনি ওই পদে ছিলেন।

পেশাজীবনে গুরুত্বপূর্ণ মামলায় আইনজীবী হিসেবে কাজ করেছেন। বিশেষ করে বঙ্গবন্ধু হত্যা মামলা ও জেলহত্যার মতো গুরুত্বপূর্ণ মামলার আইনজীবী ছিলেন তিনি। ১/১১ এর দুর্যোগকালীন সময়ে তিনি বর্তমান প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার আইনজীবী হিসেবে আইনি সহায়তা দিয়েছেন। বর্তমান সাধারণ সম্পাদক ওবায়দুল কাদের, আবুল হাসনাত আব্দুল্লাহ, শেখ সেলিমের মতো রাজনীতিবিদদের আইনজীবী হিসেবে কাজ করেছেন।

ছাত্র জীবন থেকে ছাত্রলীগ করে আসা শ ম রেজাউল করিম জাতীয় রাজনীতিতে ভূমিকা রাখতে চান। আগামী জাতীয় সংসদ নির্বাচনে তিনি পিরোজপুর-১ আসন থেকে আওয়ামী লীগের পক্ষ থেকে নির্বাচন করতে আগ্রহী। অতীত কার্যক্রম পর্যালোচনা করে আওয়ামী লীগের সভাপতি শেখ হাসিনা তাকে মনোনয়ন দিবেন বলেও আশা করেন তিনি।

শ ম রেজাউল করিম বলেন, ‘ছাত্র জীবন থেকেই আমি রাজনীতির সাথে জড়িত। ছাত্র জীবনে ছাত্রলীগ করেছি। ১৯৮০ সালে খুলনা দৌলতপুর সরকারি কলেজের ছাত্র সংসদের ভাইস প্রেসিডেন্ট (ভিপি), ১৯৮১ সালে খুলনা কৃষি কলেজের সাধারণ সম্পাদক (জিএস) ছিলাম। ১৯৮৯ সালে নাজিরপুর থানা আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক ছিলাম। ১৯৯০ সাল থেকে অদ্যবধি জেলা আওয়ামী লীগের নির্বাহী সদস্য হিসেবে কাজ করে যাচ্ছি। আগামী জাতীয় সংসদ নির্বাচনে প্রধানমন্ত্রী ও আওয়ামী লীগের সভাপতি শেখ হাসিনা আমাকে মনোনয়ন দেবেন বলে বিশ্বাস করি।’

মনোনয়ন প্রত্যাশী শ ম রেজাউল করিম আরো বলেন, ‘নির্বাচনী মাঠে আমি আছি। তবে আগামী নির্বাচনে দল যাকেই মনোনয়ন দেবে, তার জন্য নিরলসভাবে কাজ করে যাব।’

এ সময় তিনি বলেন, গত দশ বছরে সারাদেশে ব্যাপক উন্নয়ন হলেও, সে তুলনায় পিরোজপুর-নাজিরপুর-স্বরূপকাঠিতে উন্নয়নের ছোঁয়া লাগেনি। এখানকার বড় সমস্যা রাস্তাঘাট। এসব নিয়ে কাজ করতে হলে নীতিনির্ধারণী পর্যায়ে থাকা জরুরি।