প্রধান সূচি

বিএনপি ক্ষমতায় থাকলে আরও আগেই উন্নয়নশীল দেশের স্বীকৃতি মিলত: মওদুদ

bnp-23-03-18

বিএনপি ক্ষমতায় থাকলে আরও সাত থেকে আট বছর আগে বাংলাদেশ উন্নয়নশীল দেশের স্বীকৃতি পেত বলে মন্তব্য করেছেন দলটির স্থায়ী কমিটির সদস্য ব্যারিস্টার মওদুদ আহমদ।

শুক্রবার রাজধানীর জাতীয় প্রেসক্লাবের ভিআইপি লাউঞ্জে জিয়া নাগরিক ফোরাম আয়োজিত এক প্রতিবাদ সমাবেশে তিনি এ মন্তব্য করেন।

বিএনপির চেয়ারপারসন খালেদা জিয়ার নিঃশর্ত মুক্তি এবং আগামী জাতীয় নির্বাচন নিরপেক্ষ সরকারের অধীনে করার দাবিতে এই প্রতিবাদ সমাবেশের আয়োজন করা হয়।

মওদুদ বলেন, বিএনপি ক্ষমতায় থাকলে আরও সাত থেকে আট বছর আগে আমরা এই উন্নয়নশীল দেশের স্বীকৃতি পেতাম। এই সরকারের লুটপাট, দুর্নীতি আর কুশাসনের ফলে আজকে এই স্বীকৃতি পেতে বিলম্বিত হয়েছে। এ স্বীকৃতিতে সরকারের কোনো অবদান নেই।

যেখানে গণতন্ত্র ও ন্যায়বিচার নেই, সেখানে উন্নয়নশীল দেশের এ তকমা অর্থহীন মন্তব্য বলেও মন্তব্য করেন বিএনপির এ নীতিনির্ধারক। তিনি বলেন, আজ দেশে গণতন্ত্র নেই। মানুষের কথা বলার অধিকার নেই। নির্বাচিত সংসদ নেই অথচ তকমা লাগানো হয়েছে উন্নয়নশীল দেশের। আসলে উন্নয়নশীল দেশের এই তকমা অর্থহীন। এমন উন্নয়নে দেশের মানুষ কোনোভাবে সম্পৃক্ত হতে চায় না। কারণ, গণতন্ত্র ছাড়া কখনো সত্যিকারের উন্নয়ন সম্ভব নয়।

সুপ্রিম কোর্ট আইনজীবী সমিতির নির্বাচনে দেশের জনমতের প্রতিফলন ঘটেছে বলে মন্তব্য করে মওদুদ আরও বলেন, আগামী জাতীয় সংসদ নির্বাচন যদি এই রকম অবাধ ও সুষ্ঠু হয়, তাহলে বিএনপি ও ২০ দলীয় জোটের সঙ্গে আওয়ামী লীগ বা ১৪ দলীয় জোটের তফাৎ হবে ৭৫ শতাংশ।

মওদুদ আহমদ বলেন, সুপ্রিম কোর্ট বার আইনজীবী সমিতির নির্বাচন নিয়ে আওয়ামী লীগ অনেক চেষ্টা করেছে; কিন্তু জিততে পারেনি। এ বছরের নির্বাচন আমাদের জন্য সাংঘাতিক তাৎপর্যপূর্ণ। সরকারের জন্যও অত্যন্ত গুরুত্বপূর্ণ ছিল।

‘ নাম বলব না, সরকারের অত্যন্ত প্রভাবশালী নেতৃবৃন্দ চেষ্টা করেছেন এই নির্বাচনের হাওয়া উল্টাতে এবং জয়লাভ করতে। কিন্তু তারপরও তাঁরা পারেননি’, যোগ করেন তিনি।

প্রতিবাদ সমাবেশে আরও বক্তব্য দেন- বিএনপির চেয়ারপারসনের উপদেষ্টা কাউন্সিলের সদস্য আবদুস সালাম, প্রশিক্ষণবিষয়ক সম্পাদক এ বি এম মোশাররফ হোসেন, নির্বাহী কমিটির সদস্য আবু নাসের মোহাম্মাদ রহমাতুল্লাহ, দেশ বাঁচাও মানুষ বাঁচাও আন্দোলনের সভাপতি কে এম রকিবুল ইসলাম রিপন প্রমুখ।

এতে সভাপতিত্ব করেন আয়োজক সংগঠনের সভাপতি লায়ন মিয়া মোহাম্মাদ আনোয়ার। অনুষ্ঠানটি সঞ্চালনায় ছিলেন এনডিপির ভারপ্রাপ্ত মহাসচিব মঞ্জুর হোসেন ঈশা।