প্রধান সূচি

বয়সসীমা ৩৫ চেয়ে কফিন মিছিল

Coffin-procession-of-age-35

সরকারি চাকরিতে প্রবেশের বয়সসীমা ৩৫ বছর করার দাবিতে কফিন নিয়ে মিছিল করেছেন চাকরিপ্রত্যাশীরা।

আজ শুক্রবার বিকেলে বাংলাদেশ ছাত্র-পরিষদের ব্যানারে ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয় এলাকায় মিছিলটি করা হয়।

জানা যায়, রাজধানীর শাহবাগ মোড় থেকে মিছিলটি বের করে। এটি মিছিলটি ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের রাজু ভাস্কর্য ঘুরে আবার শাহবাগে এসে শেষ হয়। সেখানে এক সংক্ষিপ্ত সমাবেশ হয়।

সমাবেশে সংগঠনটির আহ্বায়ক ইমতিয়াজ হোসেন বলেন, ‘আমরা দীর্ঘ তিন বছর যাবত এই দাবি জানিয়ে যাচ্ছি। কিন্তু এতদিন আমরা সরকারের থেকে কোনো ফল পাইনি। তাই আজ কফিন নিয়ে রাজপথে নেমেছি। দাবি আদায় না হওয়া পর্যন্ত আমরা আন্দোলন চালিয়ে যাব।’

ওই সময় আগামী ৪ মে মশাল মিছিলের ঘোষণা দেন ইমতিয়াজ।

সমাবেশে কয়েকজন বক্তা বলেন, বিদ্যমান ব্যবস্থায় ছয় বছর বয়সে শিক্ষাজীবন শুরু হয়। স্নাতক শেষ করতে ২৩ বছর লাগে। এ ছাড়া নন-পিএসসির ক্ষেত্রে চাকরিতে আবেদন শুরুর বয়স রাখা হয় ১৮ বছর, যা একটি অকার্যকর আইন। ক্যাডারের ক্ষেত্রে ২১ বছর বয়সে আবেদনের আইনটিও গ্রহণযোগ্যতা হারিয়েছে। এ কারণে চাকরিতে আবেদনের আইনটি সংশোধন করলে বর্তমানে স্নাতক শেষে চাকরিতে আবেদনের বয়স স্বাভাবিকভাবেই ৩৫ বছর হয়।

সমাবেশে জানানো হয়, দেশের মানুষের গড় আয়ু যখন ৪৫ বছর ছিল, তখন চাকরিতে প্রবেশের বয়স ছিল ২৭ বছর, আয়ু বেড়ে ৫০ হলে তা ৩০ বছর করা হয়। এখন আয়ু বেড়ে ৭১ হওয়ার পরও চাকরিতে প্রবেশের বয়স কোনোভাবেই ৩০ বছর থাকতে পারে না। এ বয়স অন্তত ৩৫ হওয়া উচিত।