প্রধান সূচি

পিরোজপুরে গ্রেফতার এড়াতে পালিয়ে বেড়াচ্ছে ছাত্রদল নেতারা

sd-logo

পিরোজপুরে গ্রেফতার এড়াতে পালিয়ে বেড়াচ্ছে ছাত্রদলের নেতা-কর্মীরা। দলীয় সূত্রে জানা গেছে, জেলা ছাত্রদলের সাধারণ সম্পাদক বদিউজ্জামান রুবেল ও সাংগঠনিক সম্পাদক সালাউদ্দিন কুমারসহ ১৬ নেতা-কর্মীর বিরুদ্ধে পৃথক ২টি মামলা দায়ের করা হয়েছে। পিরোজপুর সদও থানা ও জেলার নেছারাবাদ থানায় ২টি মামলা দায়ের হয়েছে।

গত ৩১ জুলাই রাতে জেলা ছাত্রদলের সাংগঠনিক সম্পাদক সালাউদ্দিন কুমার ও রেহান রাজুকে গ্রেফতার করা হয়। পরে তাদের বিরুদ্ধে নাশকতার পরিকল্পনা ও চেষ্টার অভিযোগ এনে একটি মামলা দায়ের করা হয়। এ মামলায় জেলা ছাত্রদলের সাধারণ সম্পাদক শেখ বদিউজ্জামান রুবেলসহ ৭ নেতা-কর্মীকে আসামী করা হয়। মামলার অন্য আসামীরা হচ্ছেন- সহ-সভাপতি এমরান হাসান সজীব, খায়রুল ইসলাম বাবু, ছাত্রদল নেতা মো. মিজানুর রহমান শেখ, পরাগ সরদার।

এছাড়া একই রাতে জেলার নেছারাবাদ উপজেলা ছাত্রদলের যুগ্ম আহ্বায়ক মো. আল-আমীন শিকদারকে নিজ বাসা থেকে অস্ত্রসহ গ্রেফতার কওে নেছারাবাদ থানা পুলিশ। এ ঘটনায় ওই উপজেলার ছাত্রদলের ৯ নেতা-কর্মীর বিরুদ্ধে অস্ত্র ও বিস্ফোরক আইনে মামলা দায়ের করা হয়। ওই মামলার অন্যান্য আসামীরা হলেন- নেছারাবাদ উপজেলা ছাত্রদলের আহ্বায়ক হিরন আহম্মেদ মহিউদ্দিন, সিনিয়র যুগ্ম আহ্বায়ক সোহেল রানা মৃধা, যুগ্ম আহ্বায়ক রাজীব রায়হান, সোহেল ব্যাপারী, হাসান শিকদার, পৌর ছাত্রদলের সভাপতি গোলাম কিবরিয়া সোহাগ, সাধারণ সম্পাদক আব্দুল্লাহ আল জুবায়ের, যুগ্ম সম্পাদক কাজী রাকিব।

এ ঘটনার তীব্র নিন্দা জানিয়ে জেলা ছাত্রদলের সভাপতি হাসান আল মামুন জানান, দীর্ঘ দিন পর গঠিত নতুন কমিটির নেতৃত্বে সুসংগঠিত ছাত্রদলকে রাজনৈতিকভাবে হয়রানী করতে এ মিথ্যা মামলা দায়ের করা হয়েছে। তিনি আরো জানান, জেলা ছাত্রদলের সাংগঠনিক সম্পাদক মো. সালাউদ্দিন কুমারকে গ্রেফতারের ২ দিন পর তাকে গ্রেফতার দেখিয়ে নাশকতার পরিকল্পনা ও চেষ্টার অভিযোগ এনে একটি মামলা দায়ের করেছে সদর থানা পুলিশ।