Main Menu

চুয়াডাঙ্গা সীমান্তে ৩৭ কেজি স্বর্ণের বার উদ্ধার

37-kilogram-gold-bars-rescu

চুয়াডাঙ্গার দামুড়হুদা উপজেলার সীমান্তে ৩৭ কেজি ওজনের ৩২০টি স্বর্ণের বার উদ্ধার করেছেন বিজিবি সদস্যরা। বুধবার দুপুরে উপজেলার নাস্তিপুর সীমান্তের ৮০নং পিলারের বাংলাদেশের ৫০ গজ অভ্যন্তরে মাথাভাঙা নদী থেকে এসব স্বর্ণের বার উদ্ধার করা হয়।

বিজিবি সূত্র জানায়, দেশ থেকে স্বর্ণের একটি বড় চালান পাচার হবে- এমন সংবাদের ভিত্তিতে হাবিলদার বীরেন্দ্রের নেতৃত্বে সুলতানপুর ক্যাম্পের বিজিবি সদস্যরা সীমান্তে অবস্থান নেয়। এ সময় তিনজন চোরাকারবারি সীমান্ত পার হওয়ার সময় বিজিবি সদস্যরা তাদের ধাওয়া দেয়।

চোরাকারবারিরা তাদের বহন করা তিনটি ব্যাগ নদীতে ফেলে পালিয়ে যায়। পরে নদীতে তল্লাশি চালিয়ে ব্যাগ তিনটি উদ্ধার করা হয়। ব্যাগ তিনটি থেকে ৩৭ কেজি ওজনের ৩২০টি স্বর্ণের বার উদ্ধার করা হয়।

এ সময় চুয়াডাঙ্গা বিজিবি-৬ এর অধিনায়ক লে. কর্নেল হাসান ঈমাম ও কুষ্টিয়া সেক্টর কমান্ডার কর্নেল আরশাদ উপস্থিত ছিলেন।

লে. কর্নেল হাসান ঈমাম জানান, উদ্ধারকৃত স্বর্ণের বর্তমান বাজারমূল্য প্রায় ১৫ কোটি টাকা। এটিই এ রিজিওনের স্বর্ণ চোরাচালানের সবচেয়ে বড় চালান।

সংবাদটি শেয়ার করে অন্যদের পড়ার সুযোগ করে দিন। ধন্যবাদ।


Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked as *